কেন ব্র্যান্ড ম্যানেজার ও মার্কেটিং প্রফেশনাল দের জন্য ডিজিটাল মার্কেটিং এত গুরুত্বপূর্ণ?

আহমদ মুনতাসির বিল্লাহ
মার্কেটিং ম্যানেজার
রুপকার ডিজিটাল এজেন্সি

পৃথিবীটা অত্যন্ত অল্প দিনের মধ্যে ডিজিটাল পৃথিবীতে পরিণত হতে চলেছে। মোবাইল ফোন, ল্যাপটপ , কর্মক্ষেত্রে ডেস্কটপ কম্পিউটার, এবং আরো অনেক ইলেক্ট্রনিক্স এর মাধ্যমে ডিজিটাল কন্টেন্ট ব্যাবহার মানুষের একটি দৈনিক অভ্যাস হয়ে দাঁড়িয়েছে। এবং বেশিরভাগ ব্যাবসা প্রতিষ্ঠানই এখনো তাদের বিপণন কৌশলে (marketing strategy) এটার প্রয়োজনীয়তা অনুভব করতে পারছেনা। সত্তিকার অর্থে ডিজিটাল মার্কেটিং অন্যান্য মার্কেটিং এর চেয়ে অনেক বেশি দ্রুত ,বহুমুখী বাস্তবসন্মমত।ডিজিটাল মার্কেটিং একই সাথে ভোক্তা এবং বিপননকারি (marketer) উভয়েরই সমান উপকারে আসে।

Digital Marketing roopokar

কেন ব্র্যান্ড ম্যানেজার ও মার্কেটিং প্রফেশনাল দের জন্য ডিজিটাল মার্কেটিং এত গুরুত্বপূর্ণ? ডিজিটাল মার্কেটিং না শুধুমাত্র বর্তমান বিপণন কৌশলে (marketing strategy) একটি দ্রুতগতিতে কার্যক্ষম কৌশল বরঞ্চ এটা হল সব মার্কেটিং এর ভবিষ্যৎ এবং খুব শিগ্রই ডিজিটাল মার্কেটিং সকল ট্র্যাডিশনাল মার্কেটিং এর স্থান দখল করবে।বর্তমান প্রায় সব বড় বড় কম্পানিই ডিজিটাল মার্কেটিং ব্যাবহার করে, তাদের প্রোডাক্ট এবং সার্ভিস সম্ভাব্য ক্রেতাদের কাছে পৌঁছে দিচ্ছে। আর তাই প্রত্যেকটি ব্র্যান্ড এবং মার্কেটিং ম্যানেজার এর কাছে অত্যন্ত কার্যকর হাতিয়ার হচ্ছে ডিজিটাল মার্কেটিং।

 

 

 

ডিজিটাল মার্কেটিং এর সুবিধাগুলো দেখার আগে আমরা জেনে নেই এর প্রধান প্রধান ধরন গুলো কি কি?

  • ওয়েবসাইট
  • এস ই ও (সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন)
  • ইন্টারনেট ব্যানার অ্যাড
  • ইমেইল মার্কেটিং
  • ভিডিও মার্কেটিং
  • পে পার ক্লিক (PPC) মার্কেটিং
  • সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং (Facebook, Twitter, LinkedIn, etc.)
  • মোবাইল মার্কেটিং (SMS, MMS, etc.)

আজকের দিনে ব্র্যান্ড ম্যানেজার ও মার্কেটিং প্রফেশনাল দের জ্ঞানের পরিধি অনেক বেশি হওয়া খুবই প্রয়োজন।অনেকগুলি চ্যানেলের সাথে দ্রুত গতিতে প্রযুক্তির পরিবর্তনের সাথে দ্রুত খাপ খাইয়ে নেয়া একটি বড় চ্যালেঞ্জ। একজন দক্ষ ব্র্যান্ড ম্যানেজার বা মার্কেটিং প্রফেশনাল হিসাবে মার্কেটে টিকে থাকতে হলে আপনার জিজ্ঞাসা গুলো হওয়া উচিতঃ আপনার প্রতিষ্ঠান কি ডিজিটাল মার্কেটিং করার উপযোগী?আপনি বর্তমানে কি ধরনের ডিজিটাল মার্কেটিং চ্যানেল ব্যবহার করছেন?এর ফলাফল কি? কিভাবে ডিজিটাল মার্কেটিং কে আরও ভাল করা যায়?আপনার প্রতিযোগীদের ইতিমধ্যে কারা ডিজিটাল মার্কেটিং ব্যাবহার করছে?

সুতরাং, কেন ডিজিটাল মার্কেটিং?

প্রথমত, ডিজিটাল মার্কেটিং প্রথাগত অফলাইন মার্কেটিং পদ্ধতির চেয়েও আরও বেশি সাশ্রয়ী হয়।

ই - মেইল বা একটি সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাড একটি টিভি - বিজ্ঞাপনঃ বা সংবাদপত্র অ্যাড এর চেয়ে কম খরচ। তাছাড়া সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাড পৃথিবীর যে কোন প্রান্তে বহু সংখ্যক সম্ভাব্য ক্রেতাদের কাছে পৌঁছতে পারে।

ডিজিটাল মার্কেটিং এর প্রতিটি ধাপ ও পর্যায় আপনি পরিমাপ করতে পারেন। কোন ডিজিটাল মিডিয়া আপনার কতটা কাজে আসছে? কতজন প্রতিদিন অ্যাড হচ্ছে? কতজন লাইক দিচ্ছে? ওয়েবসাইটে কতজন প্রতিদিন ভিজিট করছে প্রতিটা কার্যক্রম পরিমাপযোগ্য, সংবাদপত্র বা টিভি বিজ্ঞাপনের ক্ষেত্রে সম্ভব নয়। আপনি 24/7 এক্সেসে আছেন - এমনকি যখন আপনার দোকান বা আপনার অফিস বন্ধ থাকে তখনও ডিজিটাল মার্কেটিং তার কার্যক্রম চালিয়ে যায়। আপনার যদি ওয়েবে উপস্থিতি না থাকে, কিভাবে আপনি সম্ভাব্য গ্রাহকদের বা ক্রেতাদের আপনাকে খুঁজে পাবে বলে আশা করেন? ইমটারনেটে চমৎকার কনটেন্ট, চমৎকার প্রোডাক্ট গ্যালারী, চমৎকার প্রোডাক্ট রিভিউ থাকে তাহলে মানুষ আপনার ক্ষেত্রে আপনাকে বিশেষজ্ঞ হিসেবে ধরে নেবে। আপনি যদি সামাজিক মিডিয়ার মাধ্যমে গ্রাহকদের এবং সম্ভাব্য গ্রাহকদের সাথে যুক্ত থাকেন, তাদের তাদের প্রশ্নের উত্তর দেন তাহলে,আপনি তাদের সঙ্গে বিশ্বাস গড়ে তুলতে পারবেন আর তখন তারা আপনার প্রতিযোগীদের (competitor) কাছে নয় আপনার কাছে আসবে। এখন মুল কথা হল, ব্র্যান্ড ম্যানেজার বা মার্কেটিং প্রফেশনাল হিসাবে মনেকরেন আপনার প্রতিযোগীরা আগে থেকেই ডিজিটাল মার্কেটিং কৌশল সম্পর্কে অবহিত যা তাদের ইতোমধ্যেই বেশ কিছু সুবিধা দিচ্ছে। যদি আপনার প্রতিযোগীরা ইতোমধ্যেই সফলভাবে ডিজিটাল মার্কেটিংকে ব্যাবহার করে থাকে, তাহলে তারা তাদের বর্তমান গ্রাহকদের সাথে সাথে সম্ভাব্য নতুন গ্রাহকদের সাথেও অনেক বেশি কার্যকর উপায়ে যোগাযোগ ও আরও আকর্ষণীয় উপায়ে নতুন গ্রাহকদের মন জয় করা জেনে নিয়েছে।এবং আপনি তা কেবল শুরু করতে যাচ্ছেন।

অনলাইন পরিসংখ্যান অনুযায়ী ৯২% ভাগ ব্যাবসা প্রতিষ্ঠানই যারা ব্লগিং করে তারা অনলাইনে নতুন গ্রাহক পায়, প্রায় প্রতিদিন। সোশ্যাল মিডিয়ার প্রায় ১০০% বেশি লিড আসে অন্যান্য মার্কেটিং এর তুলনায়, প্রায় ৭৭% ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান তাদের নতুন গ্রাহক পায় ফেসবুক থেকে। মনে রাখবেন আপনার গ্রাহকরা বেশিরভাগ সময় আছেন অনলাইনে এবং এই সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে, সুতরাং আপনি একজন ব্র্যান্ড ম্যানেজার বা মার্কেটিং প্রফেশনাল হয়ে তাদের খুঁজবেনও অনলাইনে। অনলাইন ডিজিটাল মার্কেটিংএ আপনাকে এমন নতুন কোন চমৎকার কৌশল ধরে রাখতে হবে, যা সর্বদা আপনাকে আপনার প্রতিযোগীদের থেকে এগিয়ে রাখবে।

আশা করি আপনারা এতক্ষণে ডিজিটাল মার্কেটিং এর তাৎপর্য ও গুরুত্ব বুজতে পেরেছেন।Roopokar Creative Studio গত ৫ বছর থেকে দেশের বিভিন্ন বড় বড় প্রতিষ্ঠানগুলোকে ডিজিটাল মার্কেটিং পরিসেবা দিয়ে যাচ্ছে। এ সম্পর্কে যে কোন প্রশ্ন বা জিজ্ঞাসা থাকলে আমাদের সাথে যে কোন সময় যোগাযোগ করুন ০২-৫৮০৭০২০৮ অথবা ০১৭৩০৬৪২৫২৫ নম্বরে অথবা মেইল করুন sales@roopokar.com. আমরা আপনাদের যে কোন সাহায্যে সবসময় আপনাদের পাশে আছি। ডিজিটাল মার্কেটিং সম্পর্কে আরও জানতে ভিজিট করুণ www.roopokar.com.

Leave a Comment