আপনাকে লিখতে নিষেধ করছি, বাকিটা আপনার ইচ্ছা

লিখতে লিখতে খাতার পাতা শেষ করে ফেলেছি। কলমের কালিও ফুরিয়েছে কয়েকবার। তার পরও স্যার নাম্বার দিতে কৃপনতা করে....!!!--এরকম আক্ষেপ ছিল অনেক। লিখলেই যে খাতায় নাম্বার আসে না তা অনেক পরে বুঝেছি। যখন বুঝেছি তখ আমি ছাত্র না, স্যার। ব্লগিং এর উপর বেশ বড় বড় কথা বলতেছি কয়েকদিন ধরে। আপনি হয়তো জানেন আমার দৌর বেশি দূর পর্যন্ত না। হাসান ভাইয়ের মতো ডলার কামাইতে আমি ওস্তাদ না, শাকিলের মতো এত বিজ্ঞাপনের মার প্যাচ বুঝি না। তবে একটা জিনিস ভাল ভাবেই বুঝতে হয়েছে তা হলো ছাত্রদের খাতা দেখে তাতে লাল কালি দিয়ে রং করা আর ভুল ধরে তার উপর নাম্বার দেওয়া। যাই হোক আপনি আমার ছাত্র না বা আপনার মতো জ্ঞানী ব্যক্তির শিক্ষক হওয়ার স্পর্ধাও দেখাবো না। তবে সবার কাছেই শিক্ষা গ্রহন করা যায়।

যে সব পোস্ট ভাল ব্লগে থাকে না তার তালিকা জানেন? আপার ব্লগে আপনি যা খুসি তাই লিখতে পারেন এ ব্যপারে আপনার হাত ধরে রাখার কেউ নাই। তবে মান সম্পন্ন ব্লগে যে সব লেখা দিলে মান কমে যাওয়ার আসঙ্খ্যা থাকে তা কেন লিখবেন? লেখার কিছু না পেলে আপনি বসে বসে পড়তে থাকুন। আজে বাজে কথা দিয়ে ব্লগ ভরার কি প্রয়োজন? আজ তাই কয়েকটি ওয়েব ঘেটে দেখলাম যে ভাল সাইটে সব ধরনের লেখা থাকে না। আমাদের বাংলা ব্লগ গুলোতে তো সবই ছাপে (?) ক খ অ আ লিখতে পারলেই প্রকাশ হয়। কিন্তু আপনার ব্লগটিকে একটু উন্নত মানের করে তুলতে চাইলে নিচের তালিকাটি দেখুন আর সেই ধরনের লেখা লিখতে বিরত হোন....

১. আংশিক বা নির্মানাধিন পোস্ট

“ ব্লগস্পটে কিভাবে ব্লগ করতে হয় তা নিয়ে লিখতে চেয়েছিলাম। একটু ব্যস্ততার কারনে আজ আর লিখতে পারছিনা। আগামী কাল হয়তো দেখতে পাবেন লেখাটি। এ বিষয়ে আপনাদের কোন কথা থাকলে মতামতে বলতে পারেন। “

এটি লিখেই প্রকাশ করে দিলেন। পাঠক মাত্রই বিরক্ত বোধ করবে। হয়তো আপনার লেখার মানের ব্যাপারে তারা হতাস হবে । তাই এধরনের নির্মানাধীন পোস্ট না লেখাই ভাল।

২. কোন কবির লেখকের গদ্য/পদ্য টাইপ করে প্রকাশ

এটা বাংলা ব্লগে সচরাচর দেখা যায়। ভাল কবি বা লেখকের গদ্য/পদ্যাংশ পড়তে ভালই লাগে তবে তা যদি আপনার ব্লগের অংশ হয় তাহলে আপনার ব্লগের মান ভাল হবে না।

৩. অপ্রাসঙ্গিক পোস্ট

আপনি যে বিষয়ে ব্লগ খুলেছেন তা না লিখে অন্য কিছু লিখলে অবশ্যই পাঠক হারাবেন। আপনার মন যা চায় তাই যে লিখতে বলবো না।

৪. আজ আমি কি লিখবো তা তো জানি না

“আজ আমার মনটা ভাল নেই । হাতের কাছে কোন কিছু পাচ্ছি না লেখার মতো। আপনারা কি বলবেন কি বিষয়ে লিখতে পারি”
এ জাতীয় পোস্টও বিরক্তের কারণ হতে পারে। তাই এ ধরনের লেখা আপনার ব্লগে লিখতে মানা।

৫. শুধু ছবি দিয়েই ব্লগটি লেখা

আপনার ব্লগটি যদি ফটো ব্লগ না হয় তবে শুধু প্রিয় ছবির কালেকশন বা অমুক অনুস্ঠানের ছবির কালেকশন নামক ব্লগ লিখতে বাড়ন করবো। সার্চ ইঞ্জিনের খাদ্য কীওয়ার্ড খুজে না পেলে ব্লগ প্রোমশনেও সমস্য হবে। তবে প্রথমে কিছু (ধরুন কোন ঘটনা) লিখে তার পর ছবি দিয়ে,প্রতিটি ছবির নিচে ছবির বিবরণ দিয়ে পোস্ট করতে বাধা দিব না।

৬. অন্যের পোস্টের বিরুদ্ধ উচ্চারণ

কোন একটি পোস্টের সাথে আপনি এক মত প্রকাশ করতে পারেন নি তাই নতুন একটি পোস্ট প্রকাশ করার মানে নেই। প্রয়োজনে সেই পোস্টের মতামতের ঘরে লিখুন আপনার কথা।

৭. শুধু লিংকের তালিকা

আপনার ভাল লাগা বা প্রয়োজনীয় লিংক তালিকা দিয়েই একটি পোস্ট বানালেন। এটা একটা ফালতু ধারণা। আপনার নিজের বলে কিছু থাকলো না পোস্টে । তাই কি ভাল হলো? এ জাতীয় পোস্ট পাবলিক খায় না,বাসিই হতে হতে পঁচে যায়।

৮. পোস্টের রিভিও ও লিংক

“গত সপ্তাহে আমি ৫টি পোস্ট লিখেছি। আশা করি এ সপ্তাহেও আপনাদের ভাল কিছু দিতে পারবো। আমার লেখা গুলোর তালিকা নিচে দিলাম। দেখুন এবং মতামত দিন।”
এ জাতীয় পোস্টও বিরক্তকর। একটি পোস্টে পাঠক বেশিক্ষন থাকতে চায়। তাকে যদি ক্লিকে এত বেশি উৎসাহ দেয় তাহলে পাঠক হারানোর সম্ভাবনা থাকে।

৯. শুধু মাত্র ইউটিউব (বা অন্য) ভিডিও

“গত কাল একটি মজার ভিডিও দেখতে দেখতে হাসতে হাসতে শেষ। আশা করি আপনাদেরও ভাল লাগবে ভিডিওটি তাহলে দেখুন।”
এ জাতীয় পোস্ট থেকে পাঠক কি আশা করতে পারে? যদি ভিডিওটি আপনার করা এবং আপনিই প্রথম ভিডিওটি ইউটিউবে আপলোড করে থাকেন তাহলে হয়তো কিছুটা পছন্দনীয় হতে পারে। তবে অন্যের ভিডিও এভাবে এমবেড করে দেওয়ার মাধ্যমে আপনার ব্লগের জনপ্রিয়তা কমতে পারে। তবে যদি ভিডিওটির সম্পের্কে ভাল মানের আলোচনা করতে পারেন তবে হয়তো পোস্টটির একটি মূল্যায়ন হতে পারে। ধরুন আপনি একটি টিউটরিয়াল লিখেছেন আবার একই টিউটরিয়াল ভিডিওতে আছে ।সে ক্ষেত্রে আপনি ভিডিওটি এমবেড করতে পারেন। অনেক পাঠকের জন্য এটি সহায়ক হতে পারে।

১০. কোন পোস্টের বিরোধী বক্তব্য প্রদানের উদ্দেশ্যে পোস্ট করা

একটি ব্লগে আপনার মতের বাইরে একটি কথা হলো সেই বিষয়ে তর্ক করার উদ্দ্যেশ্য নিয়ে কথা তুলে আপনার বক্তব্য প্রদান করাকে আমি বোকামি মনে করি। বেপারটা এজন্য যে আপনি আরেকজনকে গুরুত্বপূর্ণ ভাবছেন। অথচ আপনার ব্লগে আপনারই গুরুত্ব বেশি (ভাবতে হবে)।

আরও একটি কথা

ব্লগের ধরন অনুসারে আমার সব কয়টি কথা সঠিক হতে নাও পারে । আপনাকে যে এই কথাগুলো মনে রাখতে হবে তাও বলছি না। আপনার ব্লগ আপনাকেই মানসম্পন্ন লেখা দিয়ে সুন্দর করতে হবে।

আশা করি আমার অবস্থান বুঝতে আপনাদের কোন অসুবিধা হয় নি। আমার মতের সাথে অনেকের মত মিলতে নাও পারে। সেটা আলোচনার বেপার। আপনার অবস্থান থেকে আপনি জানিয়ে দিতে পারেন। আপনার কথা বলুন মতামতে, ধন্যবাদ।

3 thoughts on “আপনাকে লিখতে নিষেধ করছি, বাকিটা আপনার ইচ্ছা”

  1. চরম হয়েছে শোহেল ভাই
    ব্লগারদের অনেক কাজে আসবে

    আচ্ছা সোহেল ভাই মন্তব্যের সাথ সাথে যদি স্মাইলি এড করা যেত তাহলে মন্তব্যের পরপুর্ণতা পাওয়া যেত
    কি বলেন?

Leave a Comment