গুরু জেমস এর জীবনী

গুরু জেমস - Home | Facebook

গুরু জেমস এর জন্ম ১৯৬৪ সালের ২ ই অক্টবর।তিনি নওগা জেলার পত্নি থানার একটি গ্রামে জন্ম গ্রহন করেন। আর জন্ম নাম হচ্ছে ফারুক মাহফুজ আলম । গুরু জেমস এর বর্তমান বয়স ৫৬ বছর। তবে তিনি নওগা জেলায় জন্মগ্রহন করলেও তিনি বেড়ে ওঠে চট্রগাম জেলায়। তার বাবা একটি সরকারি কর্মকতা ছিলেন। এবং তিনি পরর্বতীতে এই সরকারি কাজ ছেড়ে দেয় এবং সে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডে কাজ করে।

বাংলার রকস্টারঃ নগরবাউল জেমস | Shadow News

জেমস গান গাইতে অনেক পছন্দ করে। তিনি শিল্পি হতে চইতেন সেই ছোট কাল থেকে। কিন্তু তার পরিবার এই গান আর তার স্বপ্ন শিল্পি হওয়া একদম পছন্দ করতেন না।গানের জন্য তিনি তার বাবার সাথে প্রায়ই অনেক ঝগড়া হতো।ঝগরা কতে করতে এক সময় তিনি মাত্র আঠারো বছর বয়সে নিজের বাড়ি ছাড়ে। জেমস তার বাড়ি ছেড়ে চট্টগ্রামে আজিজ বোডিং এর ৩৬ নাম্বার রুমে থাকা শুরু করে।এরপর সেখানে থেকেই তার নতুন অধ্যায়ের সুচনা করেন।তাদের কিছু বন্ধুদের নিয়ে শুরু করেন ফিলিংস নামক একটি ব্যান্ড।এবং সেখানের প্রধান কন্ঠকারক এবং গিটারিট হিসেবে নিজেকে তৈরি করেন।চট্টগ্রামে ফিলিংস এর দলটি মাধ্যেতে তিনি প্রথম জনপ্রয় লাভ করে।

বাংলার রকস্টারঃ নগরবাউল জেমস | Shadow News

এরপর তিনি সেই বন্ধুদের নিয়ে নগর বাউল ব্যান্ড তৈরি করে।তিনি নগর বাউলের প্রতিষ্ঠাতা। তিনি প্রথম বাংলা ভাষায় রক গান শুরু করে।গিটার বাজানোতে ও তিনি দারুন পটু ছিলেন।তিনি নগর বাউল ব্যান্ডের মুল গিটারিসট। অনেক গিতিকার তার জন্য সংগীত রচনা করেছেন।যারা যারা গান রচনা করেছেন তাদের নাম হলো কবি সামসুর রহমান, প্রিন্স মাহমুদ, সিবলি উল্লেখযোগ্য।কর্ম জীবনের শুরুতে তিনি জিমাইসন, মার্কনকলার, এবং অ্যারিক্যাপটনের মতো সঙ্গীত শীল্পিদের দ্বারা অনুপ্রানিত হয়েছিল।১৯৮৭ সালে তিনি প্রথম বারের মতো" ইস্টেশন রোড " এলভাম মুক্তি পায়। ১৯৮৮ সালে মুক্তি পায় তার প্রথম ইস্টিশন এলবাম " অন্ন্যা"।পরর্বতীতে তিনি ফিলিংস ব্যান্ডের নাম পরির্বতন করে নাম দেয় নগর বাউল।পেশায় তিনি গায়ক, গীতিকার, সুরকার, গিটারিসট ইত্যাদি।গুরু জেমস ১৯৯১ সালে তিনি রাবেয়া রথি নামক একজনকে বিবাহ করেন।কিন্তু ২০০৩ সালে তাদের মধ্যে বিবাহ বিচ্ছেদ হয়ে যায়। তিনি ২০০২ সালে বেনজি সাজাদ নামক একজনকে বিবাহ করেন এবং বর্তমান সে তার জীবন সঙ্গী।গুরু জেমস ২০১৪ সালে বাংলাদেশের জাতীয় পুরুষ্কার পায়।গুরুজেমসকে তারবক্তরা গুরু জেমস নগর বাউল বলে ডাকেন।

Leave a Comment