হাসির রাজা চার্লি চ্যাপলিন এর জীবনী

1.চার্লি চ্যাপলিন এর জন্ম ও চলচিত্রর সাথে পরিচয় (১৮৮৯-১৯০৬)

১৮৮৯ সালে ১৬ই এপ্রিল লন্ডনের ওয়াল উর্থে জন্ম গ্রহন করেন। তার এই জন্ম সালে নিয়ে অনেকেরি দ্বিমত ধারনা রয়েছে। তাই তার জন্ম সাল পুরোপুরি সত্য নয়। অনেকে বলে তার জন্ম স্থান ফ্রন্স হতে পারে। চার্লি চ্যাপলিনের বাবার নাম হচ্ছে চার্ল চ্যাপলিন সিনিয়র। আর তার মায়ের নাম হানা চ্যাপলিন। তারা দুইজন একসাথে গান গাইতেন আবার নাচতেন। চ্যার্লি চ্যাপলিনের জীবনের অনেক দুঃখ কষ্ঠে কেটেছে তার।

মাত্র ১২ বছর বয়সের আগেই তাকে যে সকল করুন কষ্ঠের মধ্যে কেটেছে তা মনে হয় মানুষ তার সারা জীবন দশায় ও দেখেনি। তার বয়স তিন বছর যখন তাকে তা বাবা মা ছেড়ে পৃথক হয়ে যায়। তাদের মধ্যে বিবাহ বিচ্ছদ হয় নি। চ্যাপলিন তার মায়ের কাছে থাকতেন। সাথে ছিল তার স্বত ভাই সিডলি চ্যাপলিন। কিন্তু তার মা হানা চ্যাপলিন কিছুদিনপর শারীরিক ও মানসিক ভাবে অনেক অসুস্থ হয়ে পরেন যার ফলে তার মাকে এক জায়গায় ভর্তি করে দেয়। তার পর চ্যাপলিন অনেক অসহায় হয়ে পড়েন। তাকে দেখাশোনার জন্য কেউ না থাকায় তাকে প্রথমিকভাবে লন্ডনের একটি অনার্থ শ্রমে এবং পরবর্তীতে অসহায় শিশুদের জন্য সেন্ট্রাল স্কুলে রাখা হয়। তার বয়স তখন মাত্র সাত বছর। এইভাবে সে দই বছর কাটানোর পর সে তার মায়ের দেখা পায়।

কিন্তু তাও বেশি দিনের জন্য নয়। কারন চ্যার্লি চ্যাপলিনের মা হানা চ্যাপলিন কোনো দিনও পুরোপুরি সুস্থ হয়ে ওঠবেন না। তারপর তাকে পাঠানো হয় তার বাবার কাছে। কিন্তু তার বাবা ছিলেন একজন মদ্যক। সেখানেও তার থাকা হলো না বেশি দিন। তার বাবা মা দুইজনই অভিনয়ে যুক্ত ছিলেন বলে সেও এই দিকে ঘুলেন।

তিনি মাত্র আট বছর বয়সে যুক্ত হয় দ্যা এইট ল্যাংকার সাহার ল্যাড নামক একটি যাত্রাদলে। সেই দলে সবাই ছিলেন অনেক অল্প বয়সের। তার অভিনয় দেখে সে সবার নজরে পড়তে লাগলো।এরপর চ্যাপলিন আস্তে আস্তে ছোট ছোট মঞ্চে অভিনয় করে জনপ্রয় হতে থাকে।এরপর শুরু হয় তার জীবনের ব্যস্থ সময়। সে নাম করা কিছু চরিত্রে অভিনয় করার সুযোগ পায়।

2.চার্লি চ্যাপলির চলচিত্রের সুরু ও তাঁর মৃত্যু (১৯০৮-১৯৭৭)

তিনি ১৯০৮ সালে বড় কম্পানি। কম্পানির নায় হচ্ছে দ্যা কার্ন কম্পানি। এখান থেকে সে জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। ১৯১০ সালে তাকে অভিনয়ের জন্য যুক্তরাষ্ট্রে পাঠায় এই কম্পানিটি। তার জনপ্রিয়তা দেখে সেখানের বড় বড় প্রতিষ্ঠান তাকে আমন্ত্রন জানালেন। তার সাপ্তাহিক টাকা নিধারন করা হয়েছিল ১৫০ ডলার।১৯১৪ সালে এই স্টুডিওতে তার প্রথম চলচিএ প্রকাশ পায়। নাম হচ্ছে " ম্যাকিং এ লিভিং"।

দিন দিন তার জনপ্রিয়তার সাথে সাথে তার পারিশ্রমিক ও বৃদ্বি পায়। তার বিখ্যত চলচিত্র " দ্যা লিটল প্রম, ভবগুরি। একসময় সে নিজেই চলচিত্র পরিচালনার কাজ করে। এখন তার পারিশ্রমিক বিশ্বের সচেয়ে বেশি পারিশ্রমিকদের মধ্যে একজন। ১৯১৬ সালে তিনি মিউচুয়াল ফ্রিম নামে প্রতিষ্ঠানের চুক্তি করে ১২ টি ছবি করে দিবে তিনি নিয়েই যার জন্যা তাকে অনেক টাকা দিতে হয়। ১৯১৯ সালে তিনি নিজে একটি প্রতিষ্ঠান দেয় এবং সেখানে বাকি সব কাজ করে তিনি। তার উল্লখযোগ্য চলচিত্রের মধ্যে হলোঃ ম্যাকিংএ লিভিং,দ্যা কিং,দ্যা এডভ্যান্চারাল ইত্যাদি।

এছাড়া তিনি অনে গুলো বিবাহ করে কিন্তু একটিও টিকে নি। সর্বশেষ ১৯৪৩ সালে বিবাহ করে শেষ পর্য়ন্ত কেটেছেন। সে তার চলচিত্র আর রাজনিতিকে একইভাবে ভালোবাসতেন।১৯৫২ সালে তার দ্যা লাইম লাইট চলচিত্র করে যা তিনি ইংল্যান্ডে মুক্তুি দিদে যায়। অবশেষে তার মৃত্যু হয় ১৯৭৭ সালের বড় দিনে।

Leave a Comment