মাইক্রোসফট ওয়ার্ড শিখুন প্রফেশনাল মানের (পর্ব-১৭)

আসসালামুয়ালাইকুম ! কেমন আছেন সবাই? আশা করি আল্লাহ্‌র রহমতে সবাই অনেক অনেক ভাল আছেন। সকলকে মাইক্রোসফট ওয়ার্ড টিউটোরিয়াল এর ১৭তম পর্বে স্বাগত জানিয়ে শুরু করতে যাচ্ছি আমাদের আজকের পর্ব।

গত পর্বে আমরা মাইক্রোসফট অফিস এ টেক্সটকে বিভিন্নভাবে ফরম্যাটিং করা পর্ব-৩ নিয়ে আলোচনা করেছিলাম। আজ মাইক্রোসফট অফিস এ টেক্সটকে বিভিন্নভাবে ফরম্যাটিং করা পর্ব-৪ নিয়ে আলোচনা করব ইনশাআল্লা। গত পর্বের পোস্টটি যদি কেউ না দেখে থাকেন তবে নিচের লিঙ্কে ক্লিক করে দেখে নিতে পারেন-

মাইক্রোসফট অফিস এ টেক্সটকে বিভিন্নভাবে ফরম্যাটিং করা পর্ব-৩

গত পর্বে ফরম্যাটিং বারের ছবিতে দেখানো ৭-১০ পর্যন্ত আলোচনা করেছিলাম। আজ পর্যায়ক্রমে ১১ থেকে আলোচনা করব ইনশাল্লাহ।

formating text different ways

 11. Line Spacing : লাইন স্পেসিং বলতে প্যারাগ্রাফে একটি লাইন থেকে আরেকটি লাইনের দূরত্বকে বুঝায়। লাইন স্পেসিং এর মাধ্যমে আমরা প্যারাগ্রাফের লাইনগুলোর দূরত্বকে প্রয়োজন মত বাড়াতে বা কমাতে পারি। ডিফল্টভাবে লাইনগুলোর দূরত্ব ১ থাকে। আমরা যদি লাইনের দূরত্বকে আরও বাড়াতে চাই তবে ১.৫ অথবা ২ অথবা আরও বাড়িয়ে দিতে পারি আমাদের প্রয়োজন অনুযায়ী।

12. Numbering : মাইক্রোসফট ওয়ার্ডে আমরা নাম্বারিং এর মাধ্যমে অটোমেটিকালি নাম্বার দিতে পারি কোন বস্তু বা বিষয়ের। যেমনঃ আমি বাজারে গিয়ে অনেক কিছু কিনলামঃ

১. মাছ        ২. আলু        ৩. পেঁয়াজ     ৪. রসূন       ৫. হলুদ       ৬. মরিচ

এভাবে নাম্বার অনুযায়ী কোন কিছু লিখতে হলে আমরা নাম্বারিং এর মাধ্যমে খুব সহজেই করতে পারি। এ জন্য নাম্বারিং এ ক্লিক করে আমরা আমাদের আইটেমগুলো লিখব এবং এন্টার প্রেস করব। ফলে সাথে সাথেই অটোমেটিক নাম্বার তৈরি হবে। আমরা যদি নাম্বারিং শেষ করতে চাই তবে দুইবার এন্টার প্রেস অথবা নাম্বারিং আইকন-এ ক্লিক করব। আমরা নাম্বারিং এ 1, 2, 3, 4/ a, b, c, d/ i, ii, iii, iv/ A, B, C, D, E ইত্যাদি ফরম্যাট ব্যাবহার করতে পারি এজন্য Format মেনু থেকে Bullets and Numbering এ ক্লিক করে Numbering ট্যাব এ ক্লিক করব এবং কাংখিত ফরম্যাট টি সিলেক্ট করে Ok প্রেস করব। এছারাও আর কিছু কাজ আছে সেখানে আপনারা দেখলেই বুজতে পারবেন। এভাবে খুব সহজেই আমরা নাম্বারিং করে আমাদের সময়কে বাঁচাতে পারি।

13. Bullets : বুলেট আর নাম্বারিং বিষয় দুটি প্রায় একই। নাম্বারিং এ 1, 2, 3, 4/ a, b, c, d/ i, ii, iii, iv/ A, B, C, D, E ইত্যাদি ফরম্যাট ব্যাবহার হয় আর Bullets এ বিভিন্ন রকমের চিহ্ন বা Bullets ব্যাবহার করা হয়। তাছাড়া অন্যান্য সমস্ত কাজগুলো একই। তাই আর আলোচনা করলাম না।

আজ এ পর্যন্তই লিখলাম, আগামী পর্বে মাইক্রোসফট অফিস এ টেক্সটকে বিভিন্নভাবে ফরম্যাটিং করা পর্ব-৫ নিয়ে আলোচনা করব ইনশাল্লাহ। সবাইকে অনেক ধন্যবাদ কষ্ট করে আমার অগোছালো পোষ্টটি পরার জন্য। আর পোষ্ট সম্বন্ধে আপনাদের মতামত বা সমস্যা অবশ্যই জানাবেন। সবার জন্য অনেক অনেক শুভ কামনা রইল। আসসালামুয়ালাইকুম !

Leave a Comment