বিশালাকার জেলিফিশ সাগরতল পর্যবেক্ষণ করবে!

জেলিফিশ অত্যন্ত দক্ষ অরগানিজমের প্রানী। তাদের বৃদ্ধির জন্য মহাসাগরের স্রোত আর ন্যূনতম শক্তি ব্যয় হয় মাত্র। এজন্য ভার্জিনিয়া একটি টেক দল গবেষনার জন্য শরু থেকেই জেলিফিশকে বেছে নেয়।

robotic-jellyfish-cyro-header
সমুদ্র তলদেশের পরীক্ষা নিরীক্ষা করছে দলটি।
প্রজেক্টটির উদ্দেশ্য সম্পর্কে শশাঙ্ক প্রিয়া বলেন-
এটি সমুদ্রতল, স্রোত এবং অগণিত অন্যান্য পানির তলদেশের কার্যক্রম নিরীক্ষণ করতে পারে। আর প্রজেক্টটি মিলিটারির অর্থায়নে চলছে।
যন্ত্রটির নাম "কাইরো"রাখা হয়েছে , কাইরো শব্দটি জেলিফিশের ল্যাটিন শব্দ থেকে এসেছে।
"কাইরো"(জেলিফিশ) যার পূর্ববর্তী সংস্করণের আকার ছিল গড়পড়তা মানুষের হাতের আকারের সমান। তবে সম্প্রতি বানানো ভার্সনটির আকার বৃদ্ধি করা হয়েছে । এখন দৈর্ঘে এটি ৫ ফুট ৭ ইঞ্চি এবং ওজনে ১৭০ পাউন্ড করা হয়েছে যাতে এটি বিভিন্ন ধরণের যন্ত্রপাতি ধারণ করতে পারার পাশাপাশি এটি অনেক টেকসই হয়।
যন্ত্রটি সিলিকন দ্বারা নির্মিত যাতে এটি জেলিফিশের মত কাজ করতে এবং পানিতে চলাচল করতে পারে। দেখলে কেও ভাবতেই পারবেনা এটি যন্ত্রের একটি টুকরা মাত্র, এভাবে বানানো হয়েছে যন্ত্রটি!

Leave a Comment