চিন্তার গভীরতা এবং হালকা ম্যাথ টিপস

এটাই টিউটোরিয়ালবিডিতে আমার প্রথম লেখা। প্রথমেই কিছু উপদেশমূলক কথাবর্তা বলি। বিরক্ত হইয়োনা।

পড়াশুনা করার প্রথম ধাপ হচ্ছে চিন্তা করা কিংবা চিন্তা করার ক্ষমতা। তুমি ২ ঘন্টা পড়লে যতটুকু উপকার হবে ১ ঘন্টা ঐ বিষয়টা নিয়ে চিন্তা করলে তার চেয়ে হাজারগুণ বেশী উপকার পাবা। বিষয়টা পরিষ্কার করে বলি।
ধরে নিলাম তুমি আজকে পড়ছো ইন্টিগ্রাল ক্যালকুলাস।প্রথমে কিছুক্ষণ তুমি পড়লে। যদি তুমি ইন্টিগ্রাল ক্যালকুলাসের ব্যাপারগুলো ধরে ফেলতে পারো তাহলে তো কোনো সমস্যাই নেই। কিন্তু বেশীরভাগ সময় তুমি তা পারবে না। এখন তুমি যদি বইটা খোলা রেখেই একটু কল্পনা করো কেন এবং কিভাবে ইন্টিগ্রাল ক্যালকুলাসের সূত্রগুলো আসলো,ডিফারেন্সিয়ালের সাথে ইন্টিগ্রালের সম্পর্ক কি,এগুলো কিভাবে এখানে প্রয়োগ করা হচ্ছে, এবং এগুলোর প্রয়োগক্ষেত্র আরো বড় করা হলে ফলাফল কি আসবে-- তাহলে তোমার অর্জিত জ্ঞানের পরিমাণ আরো বেশী হবে। সবসময় যে পারতেই হবে এমন কোন কথা নেই। ভাবতে থাকো, পারলে ভালো, না পারলেও তুমি এমন কিছু পাবে যা তোমার ভবিষ্যতে অবশ্যই কাজে লাগবে, নিশ্চিত থাকতে পারো।
(উদাহরণটা যুতসই হলো না, পরে মনে পড়লে আরো ভালো একটা উদাহরণ দিবো)।

আর তুমি সর্বোচ্চ কতটুকু শিখতে পারবে তা নির্ভর করবে একটা বিষয় কে ভেবে ভেবে তুমি কতদূর নিয়ে যেতে পারো তার উপর।
যেমন ধরো-- নিউটনের সামনে একটা আপেল পড়েছিলো গাছ থেকে। আপাতদৃষ্টিতে ঘটনাটা কিছুই না। কিন্তু সেই কিছু না ঘটনা থেকেই আজ পর্যন্ত কত বড় বড় সূত্র, কত বড় বড় থিওরেম, কত বড় বড় কাজ হচ্ছে। আর সেই আইনস্টাইন আজ পদার্থবিজ্ঞানের কোথায় তা তো বলার অপেক্ষা রাখে না।
আচ্ছা তুমি একটু ভাবো তো, ভেবে দেখো তো এমন ঘটনা আরো পাও কিনা যা কিনা খুব ক্ষুদ্র থেকে শুরু হয়ে পরবর্তীতে অনেক বিরাট ফলদায়ক হয়েছে? একটা পরীক্ষা হয়ে যাক তোমার ভাবনার ক্ষমতার!

এবার গনিতের দুটা টিপস দেই। খুব সহজ কিন্তু মজার।

টিপস--১।

ধরো ১১ এর সাথে তুমি যেকোন সংখ্যা (২ অংকের) গুণ করবে। ধরে নিলাম সংখ্যাটি ৫৩।

এখন যে সংখ্যাটি তুমি নিয়েছ(অর্থাৎ ৫৩),তাকে মনে মনে এইভাবে লিখ:৫_৩ ,অর্থাৎ মাঝে খালিঘর রেখে অংক দুটি লিখ।

এখন অংক দুটি যোগ কর(৫+৩=৮); এবং যোগফল ঐ খালিঘরে বসাও। অর্থাৎ লিখ: ৫৮৩।
আমরা জানি: ১১*৫৩=৫৮৩!!!!!!
যদি অংক দুটির যোগফল দুই অংকের সংখ্যা হয় তখন কি করবে? (নিজে নিজে চিন্তা করো, শেষ পর্যন্ত না পারলে আমাকে মেইল করো।)

টিপস--২।

৫ দিয়ে শেষ হওয়া যেকোন সংখ্যার(২ অংকবিশিষ্ট) বর্গ:
ধরি সংখ্যাটি ৬৫।
এবার সংখ্যার ১ম অংকের সাথে ১ যোগ করো(৬+১=৭);
যা পেলে তাকে আবার সংখ্যার ১ম অংকটি দিয়ে গুণ করো (৭*৬=৪২);
এবার যা পেলে তার সামনে চোখ বন্ধ করে ২৫ বসিয়ে দাও(৪২২৫);
আমরা জানি, ৬৫*৬৫=৪২২৫!!!!

যাই হোক, আমার লক্ষ্য গণিত নিয়ে কিছু একটা করা। মানে অন্তত দু'একজনকে গণিত শেখানো যারা জাতীয় পর্যায়ে (ম্যাথ অলিম্পয়াড) কিছু একটা করতে পারবে। সেটা আমি অনেকভাবেই করতে পারি। নিজস্ব ব্লগে, কিংবা অন্য কোনভাবে। কিন্তু টিউটোরিয়ালবিডি প্লাটফরমটি আমার খুব পছন্দ  হয়েছে। তাই আমি এখানেই কাজটা করতে চাই গৌতম দার সম্মতি পেলে।

গৌতম দা'র উদ্দেশ্যে বলতে চাই, দাদা আমি বড় লক্ষ্য নিয়ে এগোতে ভালোবাসি, এবং আমার কাজও হয় সময় সাপেক্ষ। তাই আপনি যদি অনুমতি দেন তবে আমি আমার পরিকল্পনা মাফিক কাজ শুরু করতে পারি।

সবাইকে পরবর্তী পর্বের জন্য অগ্রিম শুভেচ্ছা।

7 thoughts on “চিন্তার গভীরতা এবং হালকা ম্যাথ টিপস”

  1. টিউটরিয়ালবিডিতে আপনাকে স্বাগতম। আমার মনে হয় আপনার মতো ব্যক্তির সংস্পর্শে আমরা ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য ভাল একটি প্লাটফর্ম তৈরী করতে পারবো। আপনার পরবর্তি জ্ঞান-গর্ভ আলোচনার অপেক্ষায় আছি।

  2. এমদাদুল হক

    @এডমিন ভাই,আশা করি নিয়মিতই লিখতে পারবো, তবে একটু ধীরগতিতে।

    @সুলতানা আপু, মেইল ঠিকানা:nisorgo07@yahoo.com

  3. Pingback: at Digital Bangladesh

  4. আমি আসলে ঠিক এই রকম কিছুই খুজছিলাম, আপনাকে অনেক ধন্যবাদ plz এটা চালিয়ে যান.

Leave a Comment